ভোলায় ওয়ার্ড মেম্বারের মারধরে বৃদ্ধা হাসপাতালে

ভোলায় ওয়ার্ড মেম্বারের মারধরে বৃদ্ধা হাসপাতালে

0
431

ভোলা নিউজ২৪ডটনেট।।  ভোলার দক্ষিণ দিঘলদি ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের মেম্বার সেলিমের বিরুদ্ধে ৫ নং ওয়ার্ডের সোনা বরুর (৬৫) নামক এক বৃদ্ধাকে পিটিয়ে হাসপাতালে পাঠানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে। সোনা বরুর স্বামী আবদুল গণি।

তিন ছেলে ও এক মেয়ে নিয়ে ২৪ শতাংশ জমিতে ঘর করে তাদের বসবাস। তাদের বাড়ির পাশে হাজী বাড়ির নজু হাজীকে নিজের জমির ওপর দিয়ে যাতায়াতের পথ ছেড়ে দেন তিনি। কিন্তু এরপরও তাদের সাথে নজু হাজীর জমি নিয়ে বিরোধ হয়। এ নিয়ে কয়েক মাস আগেও নজু হাজীর সাথে কথার কাটাকাটি হয়। নজুর পক্ষে হয়ে গতকাল রবিবার দুপুরে ওই ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের সেলিম মেম্বার এসে সোনা বরুন, তার ছেলে মিলন ও তার স্ত্রীকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। পরে সোনা বরুরকে ভোলা সদর হাসপাতালের মহিলা মেডিসিন ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়।

আহতের বড় ছেলে মিলন জানান, আমাদের জমি দিয়েই নজু হাজী হাঁটা-চলা করেন।

এর আগেও তিনি আমাদের জমি দখল করতে চেয়েছেন। তিনি যে আমাদের জমি দখল করতে চান তার সত্যতা ফারুক চৌকিদার পেয়েছেন। এখন আমাদেরকে মেরে অন্য ওয়ার্ডের মেম্বার সেলিম নজুকে জমি দখল করে দেওয়ার চেষ্টা করেন। তিনি আমার মা, স্ত্রীর ওপর হামলা করেছেন। আমি এর দৃষ্টান্তমূলক বিচার চাই।

এ বিষয়ে আইনি ব্যবস্থা প্রকৃয়াধীন আছে বলে জানা যায়।

এ বিষয়ে সেলিম মেম্বার বলেন, তারা অভিনয় করে হাসপাতালে ভর্তি হয়ে রয়েছেন। তাদেরকে আমি মারিনি।

 

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY