বেড়াতে গিয়ে বাসের চাপা, মা মেয়ে ছেলে নিহত

0
305

ভোলা নিউজ ২৪ ডটনেট ।। টাঙ্গাইলে বাসের চাপায় পিষ্ট হয়ে মা, মেয়ে ও ছেলে নিহত হয়েছে। আজ বুধবার দুপুরে জেলার দেলদুয়ার উপজেলার নাটিয়াপাড়ায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত ব্যক্তিরা হলেন দেলদুয়ার উপজেলার নাল্লাপাড়া গ্রামের তারা মিয়ার স্ত্রী ফাহিমা বেগম (৩৫), তাঁদের মেয়ে তারিনা আক্তার (১৪) ও ছেলে তানভীর হোসেন (১০)। তাঁরা মির্জাপুর উপজেলার মহেড়া জমিদারবাড়ি (পুলিশ ট্রেনিং সেন্টার) বিনোদনকেন্দ্রে বেড়াতে যাচ্ছিলেন বলে জানা গেছে।

মির্জাপুরের গোড়াই হাইওয়ে থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মোতালেব হোসেন ও স্থানীয়রা জানান, আজ দুপুরে ফাহিমা বেগম তাঁর মেয়ে তারিনা ও ছেলে তানভীরকে নিয়ে মির্জাপুর উপজেলার মহেড়া জমিদারবাড়ি বিনোদনকেন্দ্রে বেড়ানোর উদ্দেশে রওনা হন। পথে মহেড়া পুলিশ ট্রেনিং সেন্টার স্টেশন এলাকায় ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক হেঁটে পার হওয়ার সময় ঢাকা থেকে সিরাজগঞ্জের উদ্দেশে ছেড়ে আসা দ্রুতগামী একটি যাত্রীবাহী বাস (সিরাজগঞ্জ জ-০৪-০০২৯) চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই তাদের মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে গোড়াই হাইওয়ে থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তিনজনের লাশ উদ্ধার করে। পুলিশ বাস ও বাসচালকের সহকারীকে আটক করেছে।

টাঙ্গাইল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তিনজনের ময়নাতদন্ত শেষে মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

এদিকে টাঙ্গাইলের সখীপুর উপজেলায় মাহিন্দ্র ট্যাফি ট্রাক্টরের চাপায় হামিদ আলী মাতব্বর (৭০) নামের এক বৃদ্ধ নিহত হয়েছেন। আজ দুপুরে উপজেলার কালিয়া ভণ্ডস্বরপাড়া এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। নিহত হামিদ আলী মাতব্বরের বাড়ি ওই এলাকায়। এলাকাবাসী মাহিন্দ্র ট্যাফি ট্রাক্টরকে আটক করেছে।

LEAVE A REPLY