তজুমদ্দিনে মুক্তিপন দিয়ে জেলের মুক্তি, পুলিশের অভিযানে মেঘনার জলদস্যু আটক

0
2

তজুমদ্দিন প্রতিনিধি,ভোলা নিউজ২৪ডটকম।। ভোলার তজুমদ্দিনের মেঘনায় অপহৃত জেলের ভাইয়ের করা অপহরণ মামলা পুলিশ অভিযান চালিয়ে মেঘনার জলদস্যু আমির বাহিনীর প্রধানকে আটক করেন। পরে আটক জলদস্যুকে পুলিশ জেলা হাজতে প্রেরণ করেন।

মামলার এজহার সুত্রে জানা যায়, গত ১৪ নভেম্বর রাতে উপজেলার সোনাপুর ইউনিয়নের সৃষ্টিধর গুহ গ্রামের মোঃ হোসেনের ছেলে মিজান নৌকা নিয়ে মেঘনা নদীতে মাছ ধরতে যায়। এ সময় মেঘনার চিহ্নিত জলদস্যু আমির বাহিনীর প্রধান আমির হোসেনের নেতৃত্বে তার নৌকায় হামলা চালায় দস্যু বাহিনী। তখন জলদস্যুরা জেলে মিজানকে (২৮) অপহরণ করে নিয়ে এবং ৭০ হাজার টাকা মুক্তিপর দাবী করলে তার পরিবার মুক্তিপন আদায় করলে তাকে ভোলার তুলাতলি এলাকার একটি চরে রেখে যায়। পরে তজুমদ্দিন থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে জেলে মিজানক তুলাতলির একটি চর থেকে উদ্ধার করে নিয়ে আসে। এ ঘটনায় অপহৃত জেলের ভাই আঃ রশিদ বাদী হয়ে তজুমদ্দিন থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। এরপর (১৬ নভেম্বর) মঙ্গলবার দিবাগত ভোর রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তজুমদ্দিন থানার এসআই মোঃ মনিরুজ্জামান মনিরের নেতৃত্বে পুলিশের একটি টিম থোতার পোল নামক স্থানে অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় স্থানীয়দের সহায়তায় সেখান থেকে জলদস্যু আমির বাহিনীর প্রধান আমির হোসেনকে (৩০) আটক করেন। আটক জলদস্যু আমির হোসেন বোরহানউদ্দিন উপজেলার হাসাননগর ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের রফিজলের ছেলে। পরে তাকে পুলিশ ভোলা জেল হাজতে প্রেরণ করেন। মামলা নং ০৩।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে অভিযানে নেতৃত্বদানকারী এসআই মনিরুজ্জামান মনির বলেন, জেলে অপহরণের ঘটনায় মামলা দায়েরের পর গোপন সংবাদের ভিত্তিতে থোতার পোল এলাকায় অভিযান চালিয়ে এজহার নামীয় আসামী জলদস্যু আমির হোসেনকে আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY